সন্ধ্যা নদী থেকে নারী কর্মকর্তাকে উদ্ধার

ব্রিজ থেকে বরিশালের উজিরপুর উপজেলার কালিরবাজার সংলগ্ন সন্ধ্যা নদীতে পড়ে যাওয়া এক নারী কর্মকর্তাকে উদ্ধার করেছেন স্থানীয়রা। বুধবার রাত ৯টার দিকে তাকে উদ্ধার করা হয়। পরে তাকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়।

শুভ্রাতা অধিকারী (২৮) নামে ওই নারী বরিশাল ডিভিশনাল কন্ট্রোলার অব অ্যাকাউন্টস অফিসের কর্মকর্তা। তিনি ৩১তম বিসিএস ক্যাডার কর্মকর্তা।

তার স্বামী সঞ্জীব কর্মকার বরিশালের হিজলা উপজেলা শাখা পূবালী ব্যাংকের সেকেন্ড অফিসার। বরিশাল নগরীর সদর রোডের সেডোনা আবাসিক হোটেল সংলগ্ন এলাকায় বসবাস করেন তারা।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসায় সুস্থ হওয়ার পর শুভ্রাতা বলেন, বুধবার বিকালে তিনি বাসযোগে বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের উজিরপুরের ইচলাদি বাসস্ট্যান্ডে যান। এরপর হাঁটতে হাঁটতে শিকারপুর ব্রিজে (মেজর এম এ জলিল সেতু) যান। ব্রিজের মাঝ বরাবর যাওয়ার পর রেলিংয়ের পাশে দাঁঁড়িয়ে নদী দেখছিলেন। তখন তিনি হঠাৎ নদীতে পড়ে যান। সাঁতার জানা থাকায় কোনোভাবে সাঁতরে তীরে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু কোনো নৌকা কিংবা কাউকে না দেখে ডাক-চিৎকারও দেন। এভাবে কিছুদূর নদীর তীরে যাওয়ার পর গ্রামবাসী তাকে উদ্ধার করেন।

শুভ্রাতা অধিকারীকে নদী থেকে উদ্ধার করা কালিরবাজার এলাকার বাসিন্দা জসিম বেপারী জানান, নদীর তীর থেকে অন্ধকারের মধ্যে দেখতে পান হাত উচিয়ে কেউ বাঁচার চেষ্টা করছেন। এরপর ভালোভাবে দেখার চেষ্টা করেন। তখন দেখতে পান এক নারী হাবুডুবু খাচ্ছেন। সঙ্গে সঙ্গে তিনিসহ অন্যরা নৌকা ও ট্রলার নিয়ে ওই নারীকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান এবং থানায় খবর দেন।

হিজলা উপজেলা পূবালী ব্যাংকের ম্যানেজার মো. মাসুম বলেন, শুভ্রাতা সরকার বিসিএস ক্যাডার কর্মকর্তা। তিনি বরিশাল ডিভিশনাল কন্ট্রোলার অব অ্যাকাউন্টস অফিসে কর্মরত। তার স্বামী সঞ্জীব কর্মকার হিজলা শাখা পূবালী ব্যাংকের সেকেন্ড অফিসার হিসেবে কর্মরত।

উজিরপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়াউল আহসান বলেন, উদ্ধার নারী পুলিশকে জানিয়েছেন, ব্রিজের ওপর থেকে তিনি মাথা ঘুরিয়ে পড়ে গেছেন। কিন্তু বিষয়টি সন্দেহজনক। তিনি অসুস্থ। তাকে বেশি কিছু জিজ্ঞাসা করা যায়নি। তাকে আরও জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *