কোথাও বেড়াতে যাওয়ার আগে খোঁজ নিন সেখা‌নে ছাত্রলীগ আছে কিনা : মান্না

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না ব‌লে‌ছেন, এখন ফেসবুকে সবাই লিখছে, স্ত্রীকে নিয়ে বেড়াতে যাবেন, বান্ধবীকে নিয়ে বেড়াতে যাবেন, খোঁজ নেন যেখানে যাবেন সেখানে ছাত্রলীগ আছে কি না!

তি‌নি ব‌লেন, আমাদের মা-বোনেরা নিরাপদ নয় দেশের কোথাও। সাধারণ মানুষ নিরাপদ নয়। পথে যারা চলে তারা নিরাপদ নয়, আর আমাদের জীবন তো এমনিতেই নিরাপদ নয়। একদিকে কোভিড, একদিকে জিনিসের দাম বৃদ্ধি, আবার আছে পুলিশের নির্যাতন।

বুধবার জাতীয় প্রেসক্লা‌বের সাম‌নে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্ম আ‌য়োজ‌নে নারী ধ’র্ষণ ও হ’ত্যার প্রতবাদে অনুষ্ঠিত এক মানববন্ধনে তি‌নি এসব কথা বলেন।

মান্না বলেন, এই একটা বিষয় এখন বাংলাদেশকে প্রায় গ্রাস করে ফেলেছে। আমাদের দেশের কোনো ইজ্জত নাই, মা-বোনের ইজ্জত কি থাকবে! যে সম্মানের জন্য এতো র’ক্ত ক্ষ’য় করে স্বাধীণতা অর্জন করা হলো, সে সম্মান আজ মাটিতে মিশে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ নেতারা বলেন তাদের দলে এখন নাকি সব হাইব্রিড, আসল আওয়ামী লীগ কে বা কারা তা নাকি আর খুঁজে পাওয়া যায় না। হাইব্রিড চোর-ডাকাতদের নিয়ে দল চালালে এমন অবস্থা তো হবেই।

ঢাকসুর সাবেক এই ভিপি বলেন, উনারা তো বললেই হলো না ওরা ছাত্রলীগ করে না। ওরা ছাত্রলীগ করে বলেই পুলিশ ওদের ভয় পায়, কিছু বলে না। ছাত্রলীগ-আওয়ামী লীগ করলেই যা ইচ্ছা তাই করে বেড়াতে পারেন। তাদের নামে কোনো মামলা হয় না। এই ধ’র্ষণ সারাদেশে চলে। নারায়ণগঞ্জে হলো, পার্বত্য চট্টগ্রামে হলো, কুমিল্লায় তনুকে ধ’র্ষণ করে ক্যান্টনমেন্টে খুন করা হলো। এসবের বিচার হয়েছে? হয়নি। ওরা ধ’র্ষকদের প্রশ্রয় দেয়। রাতে যারা ভোট ডাকাতি করে, তাদের বিরিয়ানি খাওয়ায়। আর আমরা প্রতিবাদ করতে গেলেই আমাদের নামে মামলা হয়।

এসময় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্ম, ঢাকা মহানগর উত্তরের নেতৃবৃন্দসহ বিএনপির নেতা-কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *