সিনহা হ’ত্যাকান্ডের দ্রুত বি’চারের দাবিতে উ’ত্তাল ফেইসবুক

সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহা মো. রাশেদ খান গত ৩১ জুলাই কক্সবাজার টেকনাফে পুলিশের গু’লিতে নিহ’ত। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে দেশব্যাপী চলছে তো’লপাড়। সিনহা হ’ত্যাকান্ডের নিয়ে উত্তাল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকও। সেখানে সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে দ্রুত সময়ের মধ্যে অপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানাচ্ছে নেটিজেনরা।

মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক লিখেন, ‘এই দিনটি দেখার জন্য কি আমরা দেশটাকে স্বাধীন করেছিলাম? পত্রিকার মাধ্যমে যা জানতে পারলাম, তাতে ওই পুলিশ অফিসারদের কাজ কর্ম পাক হা’নাদারদের চেয়ে ভ’য়ংকর ও নি’শংস। দ্রুত সময়ের মধ্যে অপরাধীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।’

আলমগীর কবির খান লিখেন, ‘বাংলাদেশ পুলিশ এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনীসহ প্রতিটি বাহিনীর অবদানই অনস্বীকার্য৷ প্রধান এই দুই বাহিনীর মাঝে কোন সংঘা’ত হউক, তা কখনোই চাইনা। ব্যাক্তির অপরাধ পুরো বাহিনীর নয়, কোন বাহিনীর অপরাধ পুরো দেশের নয়৷ প্রশাসনিক সহযোগিতায় সঠিক অপরাধী উপযুক্ত শাস্তি দাবি করছি।’

মাহমুদুল হাসান লিখেন, ‘যে দেশে একজন সাবেক সেনা অফিসারকে পাখির মতোন গু’লি করে মা’রা হয়,সেখানে আমরা সাধারণ মানুষ তো পিপড়ের সমতুল্যও নই।’

মেজর সিনহাকে শহীদ আখ্যায়িত করে এমডি সাগর তার ফেইসবুকে লিখেন, ‘শহীদ মেজর সিনহাকে নি’র্মমভাবে হ’ত‍্যা করায় আমরা বাংলাদেমের ষোল কোটি মানুষ এর তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। শহীদ মেজর সিনহার হ’ত‍্যাকারী নরপি’চাশ পুলিশ লিয়াকত ও প্রদীপসহ প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে যারা জড়িত আছে, অনতিবিলম্বে তাদের ফাঁ’সি চাই।’

দেলোয়ার হোসাইন লিখেন, ‘এইরকম আরও অনেক প্রদীপ আছে তাদেরকে খুঁজে বের করা হউক এইটা সময়ের দাবি?’

‘দোষীদের ফাঁ’সি বা ক্রসফা’য়ার দিতে হবে। আর কক্সবাজারে ইয়াবা কারবারী সাজিয়ে অনেক নিরীহ লোককে পুলিশ হ’ত্যা করেছে। তার সুষ্ঠ তদন্ত করে দোষীদের দৃষ্টান্ত শাস্তি দিতে হবে।’ – দাবি আলমগীর প্রিন্সের।

উল্লেখ্য, গত ৩১ জুলাই কক্সবাজার টেকনাফে ঘটে যাওয়া এ ঘটনায় বরখাস্ত ওসি প্রদীপসহ সাত আ’সামী কক্সবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। মামলার শুনানিতে র‌্যাবের পক্ষে প্রত্যেক আ’সামির ১০ দিন করে রি’মান্ডের আবেদন করলে আদালত ওসি কুমার দাশ, ইন্সপেক্টর লিয়াকত হোসেন এবং এসআই নন্দ দুলাল রক্ষিতের ৭ দিন করে রি’মান্ড মঞ্জুর করেন। বাকি ৪ জনকে কারা ফটকে দুই দিন করে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দেন। এছাড়াও এই মামলায় প’লাতক থাকা অপর ২ আ’সামীর বিরুদ্ধে গ্রে’ফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। এদিকে এই ঘটনা সংশ্লিষ্ট বেশ কিছু অডিও ফাঁ’স হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *